Youth Agricultural Week 2010


Colourful Rally & Human Chain orgnised at Rangpur to observe Youth Agricultural Week 2010

Press Release (Bangla) ; Leaflet (Bangla);  Memorandum to Prime Minister (Bangla)

With participation of local students, youths, cultural activists, media personalities, political activists and farmers, a colourful rally and human chain organised at Rangpur on 13.06.2010. Famous folk singer Ranjit Kumar Roy described the suffering of farmers through his folk song.  Shofia Shewle from CSRL;  Mofakharul Islam Toufiq from Online Knowledge Centre; ; Goutam Kumar Roy, Famers Leaders and Political Activist; Sabbir Ahmed, Youth Leader; Marina Lavly, Reporters of Channel i;  Rezwan Shatil from Online Knowledge Centre and Manjurul Islam Rubel, Organiser of Online Knowledge Centre, Rangpur spoke in the rally and human chain. Asking initiative to form Producers Cooperative and Marketing Cooperative with participation of farmers, a memorandum is submitted to Prime Minister through District Commissioner of Rangpur.

Online Knowledge Centre and Participatory Research and Action Network (PRAN) in association with Campaign for Sustainable Rural Livelihood (CSRL) organised this events as part of Youth Agricultural Week 2010.

 

 

 

Kanak Barman কৃষিপন্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতকরণ উৎপাদন সমবায় ও বিপণন কেন্দ্র গড়ে তোলার আহ্ববান জানিয়েছেন “অনলাইন নলেজ সেন্টার”।

 

০০ রংপুর দক্ষিণ সংবাদদাতা

কৃষিপণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতকরণ উৎপাদন সমবায় ও বিপণন কেন্দ্র গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন বেসরকারী সংস্থা অনলাইন নলেজ সেন্টার। এই দাবীতে সম্প্রতি মানববন্ধন, স্মারকলিপি পেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, অনলাইন নলেজ সেন্টারের কো-অর্ডিনেটর শফিয়া শিউলি, ছাব্বির আহম্মেদ, গৌতম রায়, সাংবাদিক মেরিনা লাভলি, সাজ্জাদ হোসেন বাপ্পি প্রমুখ।

জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রেরিত স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, কৃষিপণ্যের ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে সরকার উত্তরাঞ্চলের ১৫টি জেলায় ১টি করে পাইকারী বাজার গোয়ার্স মার্কেট ও রাজধানীর গাবতলিতে একটি সেন্ট্রাল মার্কেট নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করেছে। গ্রামে ক্ষুদ্র কৃষকদের নিকট পৌঁছাইতে হলে অবিলম্বে কৃষকদের মধ্যে উৎপাদন সমবায় ও বিপনন কেন্দ্র গড়ে তোলা প্রয়োজন যাতে করে ক্ষুদ্র কৃষকগণ সমবায়ের মাধ্যমে বীজসহ অন্যান্য কৃষি উৎপাদন দ্রব্যাদি সহজে পেতে পারে। রংপুর অঞ্চলে তরুণ কৃষক যুব ও ছাত্র নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে কৃষকদের মধ্যে উৎপাদন সমবায় ও বিপণন সমবায় গড়ে তোলার জন্য সরকারের কাছে সহযোগিতা কামনা করছে। স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে দেশের প্রায় ৮৯ জন কৃষকের মোট জমির পরিমাণ প্রায় আড়াই একর। অর্থাৎ কৃষিতে নিয়োজিত অধিকাংশই কৃষক ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক। এই কৃষকরা খাদ্য শস্যের বেশির ভাগ উৎপাদন করে। কিন্তু দারিদ্র্যতার কারণে তারা যা উৎপাদন করে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তা অল্প দামেই বিক্রি করতে বাধ্য হন। ফলে খাদ্য নিরাপত্তায় তারাই বেশি ভোগেন।

কৃষিপণ্যের ন্যায্যমূল্য দাবি

কৃষিপণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতকরণ উৎপাদন সমবায় ও বিপণন কেন্দ্র গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন বেসরকারী সংস্থা অনলাইন নলেজ সেন্টার। এই দাবীতে সম্প্রতি মানববন্ধন, স্মারকলিপি পেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যনত্ম জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, অনলাইন নলেজ সেন্টারের কো-অর্ডিনেটর শফিয়া শিউলি, ছাব্বির আহম্মেদ, গৌতম রায়, সাংবাদিক মেরিনা লাভলি, সাজ্জাদ হোসেন বাপ্পি প্রমুখ।

জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রেরিত স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, কৃষিপণ্যের ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে সরকার উত্তরাঞ্চলের ১৫টি জেলায় ১টি করে পাইকারী বাজার গোয়ার্স মার্কেট ও রাজধানীর গাবতলিতে একটি সেন্ট্রাল মার্কেট নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করেছে। গ্রামে ক্ষুদ্র কৃষকদের নিকট পৌঁছাইতে হলে অবিলম্বে কৃষকদের মধ্যে উৎপাদন সমবায় ও বিপনন কেন্দ্র গড়ে তোলা প্রয়োজন যাতে করে ক্ষুদ্র কৃষকগণ সমবায়ের মাধ্যমে বীজসহ অন্যান্য কৃষি উৎপাদন দ্রব্যাদি সহজে পেতে পারে। রংপুর অঞ্চলে তরুণ কৃষক যুব ও ছাত্র নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে কৃষকদের মধ্যে উৎপাদন সমবায় ও বিপণন সমবায় গড়ে তোলার জন্য সরকারের কাছে সহযোগিতা কামনা করছে। স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে দেশের প্রায় ৮৯ জন কৃষকের মোট জমির পরিমাণ প্রায় আড়াই একর। অর্থাৎ কৃষিতে নিয়োজিত অধিকাংশই কৃষক ক্ষুদ্র ও প্রানিত্মক। এই কৃষকরা খাদ্য শস্যের বেশির ভাগ উৎপাদন করে। কিন্তু দারিদ্র্যতার কারণে তারা যা উৎপাদন করে অধিকাংশ ড়্গেত্রেই তা অল্প দামেই বিক্রি করতে বাধ্য হন। ফলে খাদ্য নিরাপত্তায় তারাই বেশি ভোগেন।

 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s